অযোধ্যা নয়, অমিতাভের রাম মন্দির দেখেছেন? রইল সেই ভিডিয়ো – Bengali News | Amitabh bachchan home ram mandir picture comes out

0

অমিতাভ বচ্চন। বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় তিনি। নিজের পোস্ট নিজেই করে থাকেন। দিনের শুরুতে ঈশ্বরের নামে একটি ছবি পোস্ট করা তাঁর খুব চেনা অভ্যাস। সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারিও ব্যতিক্রম হল না। তবে এবার যে ছবি তিনি দিলেন, তা দর্শকদের অদেখা। অমিতাভ তাঁর বাড়ির মন্দিরের ছবি পাঠালেন। যেখানে রামচন্দ্রের মূর্তীতে তাঁকে পুজো করতে দেখা গেল। অযোধ্যার রাম মন্দিরে গিয়ে দুবার পুজো দিয়ে এসেছেন তিনি। তবে তাঁর বাড়িতেও যে রামমন্দির রয়েছে, সেই ছবি এই প্রথম এলো সামনে।

বলিউডের শাহেনশাহর প্রথম বাসস্থান ছিল প্রতীক্ষা। প্রতীক্ষা তাঁর প্রথম বাড়ির নাম। যেখানে পরিবারের সকলকে নিয়ে বসবাস করতেন অমিতাভ। তবে সেই বাড়ি এখন অতীত। যদিও বাড়িটি বিক্রি করেননি তিনি। বাড়িটি সম্প্রতি সারানোর কাজেও হাত দিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। তবে হঠাৎ কেন সেই বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসলেন নতুন ঠিকানায়? কারণ বিলাস বহুল এই উপহার। জলসা অর্থাৎ অমিতাভ বচ্চন বর্তমানে যে জায়গায় থাকেন, তা তিনি উপহারে পেয়েছিলেন। এত দামি উপহার তাঁকে কে দিয়েছেন জানেন? ছবির পরিচালক রমেশ সিপ্পি।

‘সত্তে পে সত্তা’ ছবির ব্যবপক ব্যবসা করার জন্য এই বিলাস বহুল বাংলো অমিতাভকে উপহারে দিয়েছিলেন তিনি। ফলে এই বাংলোর পিছনে বিন্দুমাত্র অর্থ খরচ করেননি তিনি। তবে বাড়ির ভিতরটা খুব যত্নের সঙ্গে জানিয়েছেন অমিতাভ ও জয়া বচ্চন। একের পর এক ছবি অন্দরমহলের ভাইরাল। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে জলসার অন্দরমহল থেকে ছবি শেয়ার করে থাকেন বচ্চন পরিবারের বিভিন্ন সদস্যরা। বর্তমানে এই বাড়ির মূল্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩০ কোটির কাছাকাছি। অমিতাভ বচ্চন পরিবারের সকলকে নিয়েই এখানে থাকেন। রয়েছে মেয়ে শ্বেতা নন্দারও একটি ঘর। তবে এই বাড়িতে এখন থাকেন না ঐশ্বর্য, সূত্রের খবর সেটাই। যদিও সে খবর নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন বর্তমান।

কেরিয়ারে এমন অনেক উপহারই পেয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। যা খুব যত্নের সঙ্গে রেখেছেন তিনি। একবার ব্লগে লিখেছিলেন অমিতাভ, ‘ভক্তদের দেওয়া ছোট্ট একটা চিঠিও আমি যত্নে রেখে দেওয়ার চেষ্টা করি।’ তবে অমিতাভের জীবনে এখনও পর্যন্ত পাওয়া সেরা উপহার এই বাংলোটিই। একাধিক সাক্ষাৎকারে তা বারবার স্বীকার করেন বিগ বি।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed