Sanju Samson: বিতর্কের জেরে বড় শাস্তি, তাও রেকর্ডের সিংহাসনে সঞ্জু স্যামসন – Bengali News | Sanju Samson fined 30% of match fees by BCCI over argument with umpires after controversial dismissal

0

Sanju Samson: বিতর্কের জেরে বড় শাস্তি, তাও রেকর্ডের সিংহাসনে সঞ্জু স্যামসনImage Credit source: BCCI

কলকাতা: একটা ভালো ইনিংসের পরও যখন কোনও টিমের ক্যাপ্টেন দলকে জেতাতে পারেন না তখন মন তো খারাপ হওয়াটা স্বাভাবিক। রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন (Sanju Samson) ঋষভ পন্থের দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে ৪৬ বলে ৮৬ রানের একটা অনবদ্য ইনিংস উপহার দেন। কিন্তু আইপিএলে (IPL) দিল্লির বিরুদ্ধে শেষ অবধি ওই ম্যাচ জিততে পারেনি রাজস্থান। ২০ রানে ম্যাচ জিতেছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের টিম। ওই ম্যাচে সঞ্জুর আউট নিয়ে বিতর্কের রেশ কাটছেই না। দিল্লির শেই হোপ বাউন্ডারি লাইনে তাঁর ক্যাচ নিয়েছিলেন। থার্ড আম্পায়ার কয়েকটি অ্যাঙ্গেল থেকে ক্যাচ দেখে সঞ্জুকে আউট ঘোষণা করেন। কিন্তু তিনি আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে খুশি হননি। মাঠে দাঁড়িয়েই আম্পায়ারকে তিনি এই বিষয়ে জানান। এ বার সঞ্জুর ওই আচরণের জন্য তাঁর শাস্তি হল।

আইপিএলের কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গ করার জন্য রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসনের ম্যাচ ফি-র ৩০ শতাংশ কাটা হয়েছে। ভালো পারফর্ম করেও একদিকে টিম জেতেনি, তার ওপর শাস্তি— দিনটা সঞ্জুর ভালো কাটেনি। তবে এরই মাঝে তিনি একখানা রেকর্ড গড়েছেন।

দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে ৪৬ বলে ৮৬ রানের অনবদ্য ইনিংসের সুবাদে মহেন্দ্র সিং ধোনির এক রেকর্ড ভেঙেছেন সঞ্জু স্যামসন। এতদিন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে সবচেয়ে দ্রুত ২০০টি ছয় মারা ভারতীয় ক্রিকেটারদের তালিকায় শীর্ষে ছিলেন ধোনি। তিনি ১৬৫টি ইনিংসে আইপিএলে ২০০টি ছয় মারার রেকর্ড পূর্ণ করেছিলেন। এ বার সেই রেকর্ডে থাবা বসালেন সঞ্জু। আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দ্রুততম ২০০টি ছক্কার রেকর্ড গড়েছেন তিনি। সঞ্জু স্যামসন এই রেকর্ড গড়তে নিয়েছেন ১৫৯টি ইনিংস।

চলতি আইপিএলে ১০ ফ্র্যাঞ্চাইজির উইকেটকিপার ব্যাটার হিসেবে সবচেয়ে বেশি রান সঞ্জু স্যামসনের। এখনও অবধি ১৭তম আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে ১১টি ম্যাচ খেলে সঞ্জু করেছেন ৪৭১ রান। তাতে রয়েছে ৫টি হাফসেঞ্চুরি। যা এ বারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে কোনও ক্রিকেটারের করা সর্বাধিক অর্ধশতরান।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed