Kedarnath Dham: অক্ষয় তৃতীয়ায় খুলছে কেদারনাথের দরজা! এতদিন কোথায় ভৈরবের পুজো হত? – Bengali News | Kedarnath Dham, the doors of the temple will open from this day

0

কেদারনাথ মন্দির ও উখিমঠের অংকারনাথ মন্দির।

শীত পড়তে না পড়তেই বন্ধ হয়ে যায় কেদারনাথ ধামের দরজা। সাধারণত, আবহাওয়ার উপর ভিত্তি করে নভেম্বরের মধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া হয় ভারতের অন্যতম জ্যোতির্লিঙ্গের মন্দির। নিয়ম অনুযায়ী, বৈশাখের তৃতীয়া তিথি অর্থাত্‍ অক্ষয় তৃতীয়ার দিন থেকেই ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হয় কেদারনাথ মন্দিরের প্রধান দরজা। ৬মাস টানা বন্ধ থাকার পর কেদারনাথ মন্দিরে নিয়ে এসে পুজো করা হয় ভৈরবনাথকে। কেদারনাথ মন্দির খোলার জন্য রয়েছে বেশ কিছু রীতি। যা প্রতিবছর এই প্রথা মেনেই কেদারনাথে মূর্তি দোলায় করে নিয়ে যাওয়া হয়। আর সেই বিশেষ দিনটি হল অক্ষয় তৃতীয়া। শুধুমাত্র এপ্রিল মাসের শেষ থেকে কার্তিক পূর্ণিমা অবধি খোলা থাকে। শীতের সময়, কেদারনাথ মন্দিরের মূর্তিগুলিকে ছয় মাসের জন্য উখিমঠের এই নিয়ে গিয়ে পুজো করা হয়।

অক্ষয় তৃতীয়ার দিন উখিমঠের ওমকারেশ্বর মন্দিরে পুজো শুরু করা হয় ভৈরবনাথের। তারপর আগামী সোমবার কেদারনাথ ধামের উদ্দেশ্যে রওনা দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। উত্তরাখণ্ডের বিশ্ববিখ্যাত চারধামযাত্রা শুরু হবে আগামী ১০ মে। তার আগে অক্ষয় তৃতীয়া কেদারনাথ মন্দিরের দরজা সাধারণ ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হবে। আগামী রবিবার, উখিমঠের ওমকারেশ্বর মন্দিরের ভৈরবনাথের পুজো দিয়ে তবেই এই প্রক্রিয়া শুরু হয়।

রবিবার সন্ধ্যে থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিশেষ রীতিতে  উখিমঠের ওমকারেশ্বর মন্দিরে ভৈরবনাথের বিশেষ পুজো শুরু হয়।তারপর বদ্রীনাথ-কেদারনাথ মন্দির কমিটি ভৈরবনাথ পুজো ও পঞ্চমুখী দোলযাত্রার প্রস্তুতি সম্পন্ন করে। সোমবার পঞ্চমুখী ডলি বা দোলায় চড়ে ভৈরবনাথ মূর্তি কেদারনাথ ধামের উদ্দেশ্যে রওনা হবে। প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় গুপ্তকাশীতে।

সোমবার সকালে, কেদারনাথের পঞ্চমুখী মূর্তিকে দোলায় নিয়ে বহন করে উখিমঠ থেকে গুপ্তকাশীর বিশ্বনাথ মন্দিরে পৌঁছানোর পর সেখানেই রাতে পুজো করে রাত্রিযাপন করা হয়। ৭ মে, পঞ্চমুখী ডোলি বা দোলা গুপ্তকাশীর বিশ্বনাথ মন্দির থেকে শুরু হবে। ৮ মে গৌরীকুন্ড থেকে শুরু করে ৯ মে গৌরীদেবী মন্দির থেকে সন্ধ্যের সময় কেদারনাথ ধামে পৌঁছাবে।শুক্রবার, ১০ মে, সকাল ৭টার সময় দর্শনার্থীদের জন্য কেদারনাথ ধামের দরজা খুলে দেওয়া হবে।

ভৈরবনাথের পুজোর সময় উপস্থিত থাকেন বদ্রীনাথ-কেদারনাথ মন্দির কমিটির সদস্য, নির্বাহী কর্মকর্তা, পুরোহিত শিবশঙ্কর লিঙ্গা, বাগেশ লিঙ্গা, টি. গঙ্গাধর লিঙ্গা, উচ্চপদস্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তা প্রমুখরা।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *