AstraZeneca: বিরল পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবর ফাঁস হতেই কোভিড টিকা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত অ্যাস্ট্রাজেনেকার – Bengali News | AstraZeneca Withdrawing COVID 19 Vaccine Globally After Rare Side Effects, Called Timing Coincidence

0

ওয়াশিংটন: করোনা টিকায় বিরল পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া! অ্যাস্ট্রাজেনেকা (AstraZeneca) সংস্থার তৈরি কোভিশিল্ড যারা নিয়েছিলেন, এই খবর জানার পর তাদের রাতের ঘুম উড়েছে। করোনা টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (Side Effect of COVID-19 Vaccine) নিয়ে যখন উদ্বেগে সবাই, সেই সময়ই বড় সিদ্ধান্ত ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থার। অ্যাস্ট্রাজেনেকার তরফে জানানো হল, তারা গোটা বিশ্ব থেকে তাদের তৈরি কোভিড ভ্যাকসিন তুলে নিচ্ছে। বাজারে আর পাওয়া যাবে না অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা টিকা। এর মধ্যে অন্তর্গত ভারতীয়দের নেওয়া কোভিশিল্ডও। যদিও, সংস্থার দাবি, বাণিজ্যিক কারণেই ভ্যাকসিন প্রত্য়াহার করে নেওয়া হচ্ছে, এর সঙ্গে ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কোনও সম্পর্ক নেই।

অ্যাস্ট্রাজেনেকা সংস্থার তরফে বিবৃতি জারি করে জানানো হয়েছে, করোনার ভ্যাকসিন আর তৈরি করা হচ্ছে না। এর সাপ্লাই বা বন্টনও করা হচ্ছে না। বাণিজ্যিক কারণেই সংস্থা সমস্ত দেশ থেকে করোনা টিকা প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, কয়েক সপ্তাহ আগেই অ্যাস্ট্রাজেনেকার রিপোর্টে স্বীকার করে নেওয়া হয় যে তাদের সংস্থার তৈরি করোনা টিকা নেওয়ার পরে বিরল কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। থ্রম্বোসিস থ্রম্বোসাইটোপেনিয়া সিনড্রোম নামক এক ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিচ্ছে, যেখানে শরীরে রক্ত তঞ্চন বা রক্ত জমাট বেঁধে যাচ্ছে। এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া অতি ভয়ঙ্কর, এর জেরে হার্ট অ্যাটাক অবধি হতে পারে, মানুষের প্রাণও যেতে পারে।

যদিও ভ্যাকসিনে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সঙ্গে বাজার থেকে ভ্যাকসিন তুলে নেওয়ার কোনও সম্পর্ক নেই বলেই দাবি করেছে অ্যাস্ট্রাজেনেকা। তাদের কথায়, এটি সম্পূর্ণভাবেই ‘কাকতালীয় ঘটনা’।

ইতিমধ্যেই ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে এই ভ্যাকসিন ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ব্রিটেন ও অন্যান্য দেশেও এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ বন্ধ করা এবং ভ্যাকসিন প্রয়োগের আবেদন জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ভ্যাক্সজ়েভরিয়া ভ্যাকসিন প্রয়োগে শরীরে রক্ত জমাট বাধা ও প্লেটলেটের সংখ্যা কমে যাওয়ার মতো ভয়ঙ্কর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। ব্রিটেনে কমপক্ষে ৮১ জনের মৃত্যু হয়েছে এই উপসর্গ নিয়ে।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed