Goutam Adani’s Love Story: আদানিকে পছন্দই করতেন না তাঁর স্ত্রী, শেষমেষ বাবার কথায় খেলা ঘুরল – Bengali News | Businessman Goutam Adani and his wife Priti full love story here

0

গৌতম আদানি ও তাঁর স্ত্রী প্রীতি।Image Credit source: TV9 Bharatvarsh

মুম্বই: ভ্যালেন্টাইন্স উইক চলছে… সবখানেই চলছে ভালোবাসার কথা। বলিউডের প্রেমের গল্প থেকে শুরু করে সুপ্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী শিল্পপতিদেরও ভালবাসার অনেক গল্প রয়েছে। কেউ মাঝপথে প্রেমের প্রস্তাব দেন, কেউ প্রেম করলেও পরিবারের কাছ থেকে বিয়ের অনুমতি পাওয়ার জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেন, আবার এমনও অনেক সুপ্রতিষ্ঠিত ব্যক্তি আছেন, যাঁদের প্রেম পরিণতি পায়নি। দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী তথা আদানি গ্রুপের মালিক গৌতম আদানিরও এরকম এক প্রেমের গল্প রয়েছে। শুনলে অবাক হবেন, যিনি আজ তাঁর সবচেয়ে বড় ভরসার জায়গা, সেই স্ত্রী একসময়ে গৌতম আদানিকে পছন্দ করতেন না। আরএন ভাস্করের বই ‘গৌতম আদানি: রিইমাজিনিং বিজনেস ইন ইন্ডিয়া’-তে গৌতম আদানির এই প্রেমের গল্প প্রকাশিত হয়েছে।

গৌতম আদানিকে পছন্দ করতেন না প্রীতি আদানি

এই খবরটিও পড়ুন

কথায় বলে, ‘লাভ অ্যাট ফার্স্ট সাইট’। কিন্তু, প্রীতি প্রথম দেখায় গৌতম আদানিকে পছন্দ করেননি। আরএন ভাস্করের বইয়ে একথা উল্লিখিত রয়েছে। বইতে আরও লেখা রয়েছে যে, প্রীতির বাবা সেবন্তীলাল গৌতম আদানিকে পছন্দ করেছিলেন। সেই সময় প্রীতি স্নাতকও শেষ করেননি। তিনি ডেন্টিস্ট হওয়ার জন্য পড়াশোনা করছিলেন। সেই সময়ই তাঁর বাবা জামাই হিসাবে গৌতম আদানিকে পছন্দ করেন। কিন্তু, প্রীতির মনে হয়েছিল, তাঁর জন্য এই ব্যক্তি সঠিক নন।

বাবার পরামর্শেই গৌতম আদানির সঙ্গে দেখা করেন প্রীতি

প্রীতির বাবা সেবন্তীলাল তাঁকে বুঝিয়েছিলেন, একজন মানুষের যোগ্যত দেখা উচিত। তিনিই মেয়েকে গৌতম আদানির সঙ্গে দেখা করতে রাজি করান। তারপর প্রথম দেখা হওয়ার পর গৌতম আদানি ও প্রীতি দুজনেই একে অপরের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর তাঁরা বিয়ে করতে রাজি হন। একপ্রকার বাবার কথাতেই ১৯৮৬ সালের ১ মে গৌতম আদানিকে বিয়ে করেন প্রীতি।

বিয়ের পর গৌতম আদানি ও প্রীতির কঠিন জীবন

বিয়ের পর প্রথমদিকে প্রীতি আদানি এবং গৌতম আদানির সময়টা খুব কঠিন ছিল। গৌতম আদানিকে কাজের জন্য দীর্ঘ সময় বাইরে থাকতে হয়েছিল। তবে যখনই সময় পেতেন তিনি স্ত্রী ও পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে ছুটে আসতেন। শেষ পর্যন্ত পরিবারের প্রতি গৌতম আদানির টানা দেখে আপ্লুত হয়ে যান প্রীতি। আরএন ভাস্করের বই অনুসারে, প্রীতি বলেছেন যে, গৌতম জানতেন কীভাবে কাজ শেষ করতে হয় এবং বাড়িতে পুরো সময় দিতে হয়।

প্রীতি এবং গৌতম আদানির দাম্পত্যের ৩৬ বছর

প্রীতি আদানি এবং গৌতম আদানি একসঙ্গে ৩৬টি বসন্ত পার করেছেন। প্রীতি প্রথম দেখায় প্রেমে না পড়লেও স্বামীর কর্তব্য-ভালবাসায় ধীরে-ধীরে তাঁর প্রতি অনুরক্ত হয়ে ওঠেন। তারপর দেখতে-দেখতে তাঁদের দাম্পত্য জীবনের ৩৬টি বছর পূর্ণ হয়ে যায়। আজও তাঁদের মধ্যেকার ভালবাসা অটুট রয়েছে।

সম্প্রতি গৌতম আদানির ৬০ তম জন্মদিনে তাঁর একটি পুরানো ছবি টুইটারে শেয়ার করেন প্রীতি। সেই ছবির সঙ্গে তিনি লিখেছিলেন, “৩৬ বছরেরও বেশি আগে আমি আমার কেরিয়ার ছেড়ে গৌতম আদানির সঙ্গে একটি নতুন যাত্রা শুরু করেছি। আজ, যখন আমি পিছনে ফিরে তাকাই, সেই ব্যক্তির জন্য আমার অগাধ শ্রদ্ধা এবং গর্ব হয়। তাঁর ৬০ তম জন্মদিনে, আমি তাঁর সুস্বাস্থ্য এবং তাঁর সমস্ত স্বপ্ন পূরণের জন্য প্রার্থনা করি।”

১০০ বিলিয়ন ক্লাবে আদানির প্রবেশ

বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি গৌতম আদানি। তাঁর ব্যবসায়িক জ্ঞান দিয়ে সারা বিশ্বে নিজের দক্ষতা প্রমাণ করেছেন। বর্তমানে তাঁর মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১০১ মার্কিন ডলার বিলিয়ন। গত বছর অনেক বড় ব্যবসায়ীকে টেক্কা দিয়েছেন গৌতম আদানি।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed