Titagarh: টিটাগড়ের একমাত্র ওড়িয়া স্কুল, ৪০০ ছাত্রের জন্য মাত্র ৪ জন শিক্ষক? – Bengali News | The only Oriya school in Titagarh facing teacher crisis

0

ক্লাস নিচ্ছেন শিক্ষিকা। Image Credit source: TV9 Bangla

ব্যারাকপুর: স্কুলে পড়ুয়ার সংখ্যা প্রায় ৪০০ জন। আর ৪ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা। এরমধ্যে আবার ২ জন স্থায়ী, ২ জন অস্থায়ী। এই অবস্থায় কার্যত ধুঁকছে ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের ওড়িয়া ভাষার একমাত্র স্কুল। টিটাগড় উপেন্দ্রভঞ্জ বিদ্যাপীঠ। একমাত্র এই স্কুলেই ওড়িয়া ভাষায় পড়ানোর ব্যবস্থা আছে। দ্বাদশ শ্রেণি অবধি ক্লাস চলে। কিন্তু শিক্ষক-শিক্ষিকার সংখ্যা এতই কম, প্রভাব পড়ে পঠনপাঠনেও। এই স্কুল থেকে যারা এবার মাধ্যমিক দিচ্ছে, ফল কেমন হবে তা নিয়ে চিন্তায় তারা।

এক সময় এই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যা ছিল ১২০০। ২০১০ সালেও ১ হাজার ছাত্র ছাত্রী ছিল। তবে ধীরে ধীরে কমেছে পড়ুয়ার সংখ্যা। এখন যা ৪০০। অভিভাবকরা বলছেন, পরিকাঠামোগত সমস্যার কারণে পঠনপাঠন বিঘ্নিত হচ্ছে। এই স্কুল থেকে যারা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক দিচ্ছে, তাদের বাবা-মায়েরা বলছেন, কেমন রেজাল্ট হবে কে জানে!

স্কুলের প্রধান শিক্ষকও উদ্বিগ্ন। যেখানে ২২ জন শিক্ষকের থাকার কথা, সেখানে আছেন ৪ জন। প্রায়দিনই বিভিন্ন ক্লাস বন্ধ থাকে বলে অভিযোগ। ভূগোল, ইতিহাস, বিজ্ঞান ও ইংরাজি শিক্ষকই নেই বলে অভিযোগ উঠছে।

প্রধান শিক্ষক শক্তিদেব মিশ্র বলেন, “আমাদের শিক্ষকের অভাব। নর্মাল সেকশনে ১৮ জন আছেন। উচ্চমাধ্যমিকে ৪ জন। মোট ২২ জন। অথচ আমাকে ৪ জন শিক্ষক নিয়ে আমাকে স্কুল চালাতে হচ্ছে। ক্লাস ম্যানেজ করতে আমরা আংশিক সময়ের কয়েকজন শিক্ষক নিতে বাধ্য হয়েছি। আমাদের মাধ্যমিক পর্যন্ত ওড়িয়া মাধ্যম। উচ্চমাধ্যমিক স্তরে ইংরাজি মাধ্যম।” এ নিয়ে জেলার সংশ্লিষ্ট দফতরের কাছে জানতে চাওয়া হলে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed