AI নির্ভর প্রযুক্তিতে বড় চমক মহারাষ্ট্র সরকারের, হাত মেলাল গুগল – Bengali News | Maharashtra Government signs MoU with Google for AI based Technologies

0

পুণে: লোকসভা ভোটের মুখে আরও এক বড় চমক মহারাষ্ট্রে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (Artificial Intelligence) বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে মহারাষ্ট্রের আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে আমূল বদল আনার চিন্তাভাবনা শিন্ডে সরকারের। মহারাষ্ট্র সরকারের উপমুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিস গতকালই একপ্রস্থ বৈঠক করেছেন গুগলের সঙ্গে। কৃষি, স্বাস্থ্য, শিক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রগুলিতে এবার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে ব্যবহার করে আরও ব্যাপক আকারের সমাধানের রাস্তা খুঁজছে মহরাষ্ট্র সরকার। আর সেই নিয়েই বৃহস্পতিবার গুগলের সঙ্গে এক মৌ চুক্তি সই হয়ে গেল শিন্ডে সরকারের।

পুণেতে গুগলের অফিসে বসে এই মৌ চুক্তিতে সই হয়। সেখানে মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে উপস্থিত ছিলেন উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিস ও রাজ্যের মুখ্যসচিব নিতিন কারের। অন্যদিকে সংস্থার তরফে উপস্থিত ছিলেন গুগল ইন্ডিয়ার কান্ট্রি হেড তথা ভাইস প্রেসিডেন্ট সঞ্জয় গুপ্তা। উপমুখ্যমন্ত্রী ফড়নবিস নিজেই জানালেন, কয়েক সপ্তাহ আগেই গুগল কর্তা সঞ্জয় গুপ্তার সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছিল। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা কীভাবে মানুষের জীবনের উপর প্রভাব ফেলছে, সেই নিয়ে ওদিন আলোচনা হয়েছিল দুজনের। গুগল কর্তা সেদিন তাঁকে বলেছিলেন, গুগলের বিভিন্ন সেন্টার অব এক্সিলেন্সগুলি কীভবে বিভিন্ন প্লাটফর্ম ও বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে যাচ্ছে নিরন্তর। সেই কথা প্রসঙ্গেই ফড়নবিস গুগল কর্তা গুপ্তাকে জানিয়েছিলেন, মহারাষ্ট্র সরকারের পরিকল্পনার কথা এবং নাগপুরে একটি উৎকর্ষ কেন্দ্র তৈরির ভাবনার কথা। ফড়নবিসের কথায়, ‘সে সময়ে আমাদের উভয়েরই মনে হয়েছে যে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে এটি করা যেতে পারে, তাতে উভয়েই লাভবান হবে.’

দেবেন্দ্র ফড়নবিসের বক্তব্য, প্রযুক্তিকে এমনভাবে ব্যবহার করতে হবে যা সরকারকে সঠিকভাবে পরিচালিত করতে সাহায্য় করে। সরকারের বিভিন্ন পরিষেবাগুলিকে যাতে আরও শক্তিশালী ও মজবুত করতে পারে, সেই মতো করে প্রযুক্তিকে ব্যবহার করতে হবে। মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী জানান, গুগল ও মহারাষ্ট্র সরকার যৌথভাবে মোট সাতটি ক্ষেত্রের উপর কাজ করবে। তার মধ্যে রয়েছে কৃষি ক্ষেত্রও।

এই খবরটিও পড়ুন

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed