Ram Temple inauguration ceremony: রাম মন্দিরের দ্বারোদ্ঘাটন অনুষ্ঠানের আমেজ থেকে বঞ্চিত হবে না জেলবন্দিরাও, বিশেষ উদ্যোগ যোগী সরকারের – Bengali News | Yogi Government initiative to live telecast of Ayodhya ram temple consecration ceremony for jail prisoners

0

অযোধ্যা: আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় রাম মন্দিরের বিগ্রহের প্রাণ প্রতিষ্ঠা হবে। দেশ-বিদেশের কয়েক হাজার বিশিষ্ট অতিথি, সন্ন্যাসীর উপস্থিতিতে গর্ভগৃহে বিগ্রহকে উপিবিষ্ট করাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দেশের প্রত্যেকটি মানুষ যাতে সেই অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকতে পারেন, সেজন্য সরাসরি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করার ব্যবস্থা করেছে রাম মন্দির ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ। আর এই সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবে না জেলের কয়েদিরাও। উত্তর প্রদেশের জেলবন্দিদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করেছে যোগী সরকার।

কারাগারে অনুষ্ঠানের লাইভ সম্প্রচার হবে

উত্তর প্রদেশের কারাগার ও হোম গার্ডের প্রতিমন্ত্রী (স্বাধীন দায়িত্ব) ধরমবীর প্রজাপতি জানিয়েছেন যে, আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় রাম মন্দিরে বিগ্রহের প্রাণ প্রতিষ্ঠার অনুষ্ঠানের লাইভ সম্প্রচার দেখতে পাবেন জেলবন্দিরাও। তিনি আরও জানান, সমস্ত জেল সুপারকে অযোধ্যায় বিগ্রহের প্রাণ প্রতিষ্ঠার অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। ধর্মবীর প্রজাপতি আরও জানান, তিনি মন্ত্রিত্বের দায়িত্ব নেওয়ার পরই কারাগারে গায়ত্রী মন্ত্র ও মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র জপ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন।

বন্দিদের হনুমান চালিশা ও সুন্দরকাণ্ডের বই বিতরণ করা হবে

জেল বন্দিদের মধ্যে গণ্ডগোল এড়াতে হনুমান চালিশা ও সুন্দর কাণ্ড বই বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন উত্তর প্রদেশের কারামন্ত্রী ধর্মবীর প্রজাপতি। তিনি বলেন, “বন্দিরা হনুমান চালিশা ও সুন্দরকাণ্ডের বই দাবি করছেন। সেজন্য গীতা প্রেস গোরক্ষপুর থেকে সুন্দরকাণ্ড ও হনুমান চালিশার ৫০ হাজার করে কপি অর্ডার করা হয়েছে। শীঘ্রই সেগুলি সমস্ত কারাগারে বিতরণ করা হবে।”

প্রসঙ্গত, অযোধ্যায় রাম মন্দিরে রামের অভিষেক অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে আগামী ২২ জানুয়ারি সারা দেশে প্রদীপ জ্বালিয়ে দীপাবলি উদযাপনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এছাড়া উত্তর প্রদেশে ইতিমধ্যে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। শহরে-গ্রামে ধর্মীয় মিছিল বের হচ্ছে। ভজন-কীর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। সমগ্র রাজ্যে রাম চরিত মানসের ধারাবাহিক পাঠের আয়োজন করা হচ্ছে। এমনকি রাম মন্দিরের তরফে অযোধ্যাবাসীর জন্য বিশেষ প্রসাদ বিতরণেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed