Frederick Spofforth: পরিচিত দৈত্য নামে! আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম হ্যাটট্রিক করেছিলেন যিনি… – Bengali News | When ‘The Demon’ Frederick Spofforth claimed first ever international hat trick in 1879

0

কলকাতা: চিন মিউজিক! হুইসপারিং ডেথ! এই বিশেষণগুলো অনেকেই শুনতে অভ্যস্ত। তেমনই একজন ‘দৈত্য বোলারও’ ছিলেন! ফ্রেডেরিক স্পফর্থ। উচ্চতা ৬.৩ ফুট। কিন্তু তাঁর গতি এবং নিখুঁত বোলিং যে কোনও ব্যাটারের ঘুম কেড়ে নেওয়ার জন্য যথেষ্ঠ ছিল। এই অজি পেসারকে সবচেয়ে বেশি সমঝে চলতেন ইংল্যান্ড ব্যাটাররাই। হঠাৎ কেন এই প্রসঙ্গ! আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনেক হ্যাটট্রিকই দেখেছে ক্রিকেট বিশ্ব। টানা চার বলে উইকেটের নজিরও রয়েছে। তবে এই সবের শুরুটা হয়েছিল ফ্রেডেরিকের সৌজন্যেই! বিস্তারিত রইল TV9Bangla Sports-এর এই প্রতিবেদনে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম হ্যাটট্রিকের নজির ফ্রেডেরিক স্পফর্থের। সেই ১৮৭৯ সালে! দুরন্ত গতি, সুইং, ফুটবলে যেমন সোয়ার্ভিং কিক হয়, তাঁর বোলিংয়েও সেই সোয়ার্ভ ছিল। সে কারণেই আরও বেশি ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন স্পফর্থ। যে কারণে, তাঁকে দৈত্য বোলার বলা হত। ১৮৭৭ সালে একটি টেস্ট সিরিজে খেলেছিলেন স্পফর্থ। এরপর ইংল্যান্ডে একটি টেস্ট খেলতে যাওয়া।

টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড। কিছুক্ষণের মধ্যেই তাদের পরিস্থিতি কী হতে চলেছে, কোনও ধারনাই ছিল না ইংল্যান্ড ব্যাটারদের। বোলিংয়ে এসে ম্যাচের দ্বিতীয় বলেই ইংল্যান্ড ওপেনার জর্জ উলিয়েটকে ফেরান ফ্রেডেরিক। এরপর দু-উইকেট বোলিং পার্টনার ফ্র্যাঙ্ক অ্যালেনের। কিছুক্ষণের মধ্যেই ইংল্যান্ড ১৪ রানে ৪ উইকেট! ইনিংস গড়ায় চেষ্টায় ব্যর্থ ইংল্যান্ড। তাদের স্কোর ২৬-৪ থেকে বিপর্যয় বাড়ান স্পফর্থ। তিন বল, তিন বোল্ড! ভার্নন রয়েল, ফ্রান্সিস ম্যাকিনন, টম এমেটকে পরপর তিন বলে ফিরিয়ে ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম হ্যাটট্রিক করেন।

এই খবরটিও পড়ুন

সেই ম্যাচে সব মিলিয়ে ১৩ উইকেট নিয়েছিলেন স্পফর্থ। এই দৈত্য বোলারের সৌজন্যেই হোম কিংবা অ্যাওয়ে, প্রথম বার টেস্ট সিরিজ জেতে অস্ট্রেলিয়া। স্পফর্থের আরও রেকর্ড রয়েছে। টেস্ট ক্রিকেট বা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম বোলার হিসেবে উইকেটের হাফসেঞ্চুরি তাঁরই। ১৭ বছরের কেরিয়ারে ৯৪টি উইকেট নেন। এর মধ্যে ৫০টিই ছিল বোল্ড! ডব্লিউজি গ্রেসের মতো কিংবদন্তি ব্যাটারের বিরুদ্ধেও সফল ছিলেন স্পফর্থ।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed