Recruitment Scam Case in High Court: ‘লিপস অ্যান্ড বাউন্ডস’ মামলায় রিপোর্ট জমা পড়ল হাইকোর্টে, আরও বিপাকে ‘কাকু’ – Bengali News | ED submits report in Leaps And bounds case regarding Recruitment Scam

0

আদালতে নিয়োগ মামলাImage Credit source: GFX- TV9 Bangla

কলকাতা: নিয়োগ দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলায় ‘লিপস অ্যান্ড বাউন্ডস’ সংস্থার ভূমিকা নিয়ে উঠেছিল প্রশ্ন। সেই মামলায় মঙ্গলবার হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। কত সম্পত্তির হদিশ মিলেছে, তা এদিনের রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া বিচারপতি অমৃতা সিনহার নির্দেশে আরও বিপাকে পড়তে চলেছে কালীঘাটের কাকু ওরফে সুজয়কৃষ্ণ ভদ্র। এই মামলার সূত্র ধরে যাঁদের নাম সামনে এসেছে, তাঁদের একে একে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে দাবি করেছে ইডি।

ইডি রিপোর্ট দিয়ে জানিয়েছে, সাড়ে সাত কোটি টাকা মূল্যের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এছাড়া আটটি সম্পত্তির হদিশ মিলেছে। এগুলি বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলেও উল্লেখ করেছে ইডি।

‘লিপস অ্যান্ড বাউন্ডস’ সংস্থার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন সুজয়কৃষ্ণ ভদ্র। বর্তমানে তিনি এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর কন্ঠস্বরের নমুনা বা ভয়েস স্যাম্পল পেতে রীতিমতো হয়রান হতে হচ্ছে ইডি-কে। এমনকী এসএসকেএম-এ গিয়েও ফিরে আসতে হয়েছে। এ কথা জেনে বিচারপতি এদিন নির্দেশ দিয়েছেন, ইডি-কে একটা টিম তৈরি করতে হবে, যেখানে একজন চিকিৎসক থাকবেন, যিনি ভয়েস টেস্ট করতে পারেন। অনলাইনেও কথা বলতে পারবেন। ইডি-র জয়েন্ট ডিরেক্টরকেও থাকতে হবে সেই টিমে।

এই খবরটিও পড়ুন

বৃহস্পতিবার ফের এই মামলার শুনানি রয়েছে থাকবে। বিচারপতি অমৃতা সিনহা জানিয়েছেন, ইএসআই-এর কাছ থেকে জানতে চাওয়া হবে যে, কণ্ঠস্বরের নমুনা পরীক্ষার জন্য কতদিন সময় লাগতে পারে।

উল্লেখ্য, গ্রেফতার হওয়ার কিছুদিন পরই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন সুজয়কৃষ্ণ ভদ্র। তাঁর হার্ট অপারেশনও করা হয়। এরপর জেলে নিয়ে যাওয়া হলে আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তারপর থেকে এসএসকেএম-এই রয়েছেন সুজয়কৃষ্ণ। এদিকে, প্রমাণ হিসেবে পাওয়া একটি কন্ঠস্বর ‘কাকু’র কি না, তা জানতে মরিয়া ইডি।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed