Kolaghat: কার্তিকের ফাঁদে পড়ে পাড়ার মেয়ে-বউদের কপালে হাত! – Bengali News | Fraud in the name of gold loan no complaint lodge yet

0


সোনা বন্ধক রেখে চিন্তায় গ্রামবাসীরা।
Image Credit source: TV9 Bangla

পূর্ব মেদিনীপুর: গ্রামে মহিলারা কেউ সোনা, কেউ আবার টাকা গচ্ছিত রাখতেন এলাকার কার্তিকের কাছে। চড়া সুদ পাওয়ার আশায় এই ব্যবস্থা। কিন্তু সেই আশাই কাল হল। চড়া সুদ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে স্বনির্ভর গোষ্ঠী-সহ গ্রামের মহিলাদের কয়েক কোটি টাকার সোনা ও টাকা নিয়ে চম্পট দিলেন অভিযুক্ত। কোলাঘাট ব্লকের এই খবর ছড়াতেই এলাকায় চাপানউতর শুরু।

জানা গিয়েছে, কোলাঘাট ব্লকের ফরিদপুর, রাইন,গোপালনগর, খাদিনান, মাছিনান যশহর—সহ ১০টি গ্রামে এই ফাঁদ পাতা হয়। গ্রামের শতাধিক দরিদ্র গ্রামবাসী-সহ স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলা প্রতারণার জালে জড়ান। কার্তিক সাহু নামে এলাকার এক যুবকের সোনার দোকান। একইসঙ্গে সুদেরও কারবার তাঁর। দীর্ঘদিন ধরেই গ্রামের মহিলাদের কাছ থেকে টাকা, সোনা লেনদেনের মাধ্যমে উচ্চহারে সুদ দিতেন তিনি।

কার্তিকের কাছে সোমবার বেশ কয়েকজন মহিলা টাকা ও সোনা ফেরত পেতেন। তাঁর সোনার দোকানের সামনে গেলে দেখেন দোকান বন্ধ। এরপরই মহিলারা কার্তিকের খোঁজে তাঁর বাড়ি যান। কার্তিকের মায়ের সঙ্গে দেখা হলে মা জানান, ছেলে কী করে সে সম্পর্কে কিছুই জানেন না।

এই খবরটিও পড়ুন

স্থানীয় সূত্রে খবর, সোনা বন্ধকের ব্যবসার আড়ালে প্রায় ৩ কোটি টাকার গয়না নিয়ে এলাকা থেকে চম্পট দিয়েছেন অভিযুক্ত। এই ঘটনার পর এলাকার মহিলারা কার্তিকের দোকানে ও বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেন। কোলাঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক অনুষ্কা মাইতি বলেন, এরকম খবর তাঁদের কাছে এসেছে। তবে লিখিতভাবে অভিযোগ পেলে গোটা বিষয় খতিয়ে দেখবেন।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed