‘স্ত্রীর গালে সপাটে চড় মানেই সিরিয়াল হিট’, শুনে হতবাক অভিনেত্রী – Bengali News | Amruta Subhash recalls ‘disgusting’ comment by TV producer

0

সিরিয়াল বা ধারাবাহিক, অধিকাংশ ড্রইং রুমের প্রাণকেন্দ্র। বিভিন্ন গল্পের মোড়কে এক একটি ধারাবাহিক দর্শক দরবারে পেশ করা হয়। নির্মাতারা এমন গল্প উপস্থাপনা করেন, যা অধিকাংশ সময়ই পরিবার কেন্দ্রিক হয়ে থাকেন। এক পরিবারের নানান সদস্যকে কেন্দ্র করে গল্প আবর্তিত হয়ে থাকে। সেখানে শাশুড়ি-বউমার কুটকাচালিই যেন অধিকাংশ গল্পের অংশ হয়ে ওঠে। সে হিন্দি হোক কিংবা বাংলা। বেশ কিছু ধারাবাহিক ছক ভেঙে গল্প পেশ করলেও তার ট্রেন্ড এখনও তৈরি হয়নি। ফলে অনেক অভিনেত্রীদেরই ইচ্ছে না থাকলেও এমন অনেক দৃশ্যে অভিনয় করতে হয়, যা তাঁদের ন্যায় নীতির বিরুদ্ধে। তবে একশ্রেণির অনুমান এগুলোই নাকি পর্দায় চলে। আর তা বেশ কিছু ক্ষেত্রে জোর করেই প্রায় চাপিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে।

ঠিক তেমনই এক অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছিল অভিনেত্রী অম্রুতা সুভাষকে। তাঁকে একটি ধারাবাহিকের দৃশ্য ষেভাবে বোঝানো হয়েছিল, তা তিনি ঠিক মেনে নিতে পারেননি। প্রযোজক তাঁকে বলেছিলেন, স্বামী স্ত্রীকে চড় মারলে সেটাই চলে। যা নিয়ে রীতিমত তর্ক জুড়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। যার বদলে তাঁকে প্রযোজক বলেছিলেন, তুমি নাটকের মঞ্চে কোনও চরিত্র করছ না, যখন ও তোমায় মারবে তখনই তো TRP বাড়বে। অভিনেত্রী পরবর্তীতে জানিয়েছিলেন, তাঁর খুব খারাপ লেগেছিল এমন মন্তব্য।

এই খবরটিও পড়ুন

তাঁর মতো অনেকে রয়েছেন যাঁরা হয়তো পর্দায় এমনটা করতে চান না, বা চরিত্রের সঙ্গে নিজের ব্যক্তিপছন্দের অনেকটা ফারাক দেখেন, যা পর্দায় দেখানোর ক্ষেত্রেও অস্বস্তিতে পড়তে হয় তাঁদের। তবে সিরিয়াল মানেই এমন গল্প দর্শক চায়, এই ধারণা দীর্ঘদিন ধরে চলছে। তবে এখন অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মহিলাদের বেশি দাপটের সঙ্গেই পর্দায় উপস্থাপনা করার একটা ট্রেন্ড দেখা যাচ্ছে।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed