Mini pizza: হোক না ফাস্টফুড, শীতের দিনে বাড়িতে বানানো পিৎজা বেশ ভালই লাগে – Bengali News | Easy mini pizza recipe at home

0

শীতের রাতে বানিয়ে ফেলুন মিনি পিৎজা

শীতের দিনে আর কিছু হোক বা নাই হোক- ঘোরা, বেড়ানো খাওয়া দাওয়া এসব কিন্তু জম্পেশ হয়। শীতের দিনে রকমারি খাবার খেতেও বেশ লাগে। এই সময় অনেক অফিসেই ছুটি চলে, স্কুলও থাকে বন্ধ। ফলে অনেকেই ঘুরতে যান এই শীতে। আর যাঁরা যান না তাঁরা বাড়িতে নিত্য নতুন খাবার বানিয়ে খান। শীতের দিনে বাড়িতে নতুন গুড়ের পাটালি, মোয়া, পায়েস, পিঠে এসব খেতে বেশ লাগে। শীতে হরেক সবজি পাওয়া যায়। সেই সবজি দিয়ে বিভিন্ন তরকারি যেমন বানানো হয় তেমনই রোল, পিৎজা এসবও বানানো হয়। সারা বছর রাতে নিয়ম করে ভাত বা রুটি খেলেও শীতের রাতে এসব গতে বাঁধা খাবার খেতে মোটেই ইচ্ছে করে না। আর তাই শীতের রাতে বানিয়ে নিতে পারেন এমন মিনি পিৎজা। ছোট থেকে বড় সকলেরই এই পিৎজা খুব পছন্দের। আর একটা খেলে মনও ভরবে না।

একটা বড় বাটিতে প্রথমে ময়দা দিয়ে ডো বানিয়ে নিতে হবে। ছোট বাটির ২ বাটি ময়দা, স্বাদমতো নুন-চিনি, হাফ চামচ বেকিং পাউডার, খুব সামান্য বেকিং সোডা, এক চামচ সাদা তেল দিয়ে খুব ভাল করে সবকিছু মেখে নিতে হবে। অল্প অল্প জল দিয়ে শক্ত ডো মেখে নিতে হবে। ১০ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে। পিৎজার জন্য দু টো পেঁয়াজ রিং করে কেটে নিতে হবে। এছাড়াও অর্ধেক টমেটো, পেঁয়াজ, ক্যাপসিকাম কুচি করে রাখতে হবে। ময়দার ডো ভাল করে ঠেসে দুটো লেচি করে নিতে হবে। দুটো লেচি থেকে মোটা রুটি বেলে নিতে হবে। এবার একটা রুটির উপর পেঁয়াজের ৬ টা রিং একটু করে গ্যাপ রেখে সাজিয়ে নিন। উপর থেকে আরও একটি রুটি দিয়ে চাপা দিন। পেঁয়াজের রিং চেপে চেপে গোল করে নিতে হবে। এবার একটা গ্লাস দিয়ে পেঁয়াজের মাপে গোল গোল করে গ্লাস দিয়ে কেটে নিতে হবে।

মোট ৬ টা পিৎজা হবে এখান থেকে। কাঁটা চামচ দিয়ে পিৎজার উপর ছোট ছোট ছিদ্র করে নিতে হবে। পিৎজার উপর অল্প অল্প করে পিৎজা সস লাগিয়ে দিন। পেঁয়াজ, ক্যাপসিকাম কুচি অল্প অল্প করে ছড়িয়ে দিতে হবে। চিজ গ্রেট করে উপর থেকে দিন। এছাড়াও অরিগ্যানো, চিলিফ্লেক্স, গোলমরিচ দিতে ভুলবেন না। সব শেষে আবারও একটু চিজ গ্রেট করে দিতে হবে। একটা কলাপাতার উপর তেল ব্রৈশ করে ওতে পিৎজা গুলো সাজান। একটা বড় পাত্র প্রথমে গরম করে নিন। এবার ওর উপর একটা স্ট্যান্ড বসিয়ে ওতে পিৎজার থালা বসিয়ে উপরে তাওয়া ঢাকা দিয়ে বেক করে নিতে হবে২০ মিনিট। ব্যাস তৈরি গরম পিৎজা। গরম গরম পিৎজা খেতে খুব ভাল লাগে।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed